দেবী সরস্বতী

দেবী সরস্বতী প্রসঙ্গে প্রথম উল্লেখ, প্রতিমা, নামের বুৎপত্তি ও অর্থ, ঋগ্বেদে উল্লেখ, বিভিন্ন নাম, বাংলা ভাষায় সরস্বতীর অন্যান্য নাম, তেলুগু, তামিল ভাষায়, ভারতের বাইরে , প্রতিমা কল্পনা, রামায়ণের সাথে যোগ, উৎসব পালন, স্তব বা মন্ত্র, পুষ্পাঞ্জলি প্রদান, প্রার্থনা জানানো ও দেবীকে প্রনাম জানানো সম্পর্কে জানবো।

Table of Contents

বিদ্যার দেবী সরস্বতী

দেবী সরস্বতী দেবী
অন্য নাম সারদা, বাগদেবী, ভারতী
বাহন রাজহাঁস
মন্ত্র ওঁ ঐঁ সরস্বত‍্যই নমঃ
উৎসব সরস্বতী পূজা
তিথি বসন্ত পঞ্চমী
দেবী সরস্বতী

ভূমিকা :- হিন্দুধর্মে জ্ঞান, সংগীত, শিল্পকলা, বাক্য, প্রজ্ঞা ও বিদ্যার্জনের দেবী হলেন সরস্বতী। হিন্দুধর্মে সরস্বতী, লক্ষ্মী ও পার্বতী ‘ত্রিদেবী’ নামে পরিচিত।

দেবী সরস্বতীর প্রথম উল্লেখ

দেবী রূপে সরস্বতীর নাম প্রথম উল্লেখ পাওয়া যায় ঋগ্বেদে। সেই বৈদিক সভ্যতার সময় থেকে শুরু করে আধুনিক যুগ পর্যন্ত হিন্দুধর্মে তিনি একজন গুরুত্বপূর্ণ দেবীর স্থান অধিকার করে রয়েছেন।

সরস্বতী দেবীর প্রতিমা

সরস্বতী দেবী সাধারণত দ্বিভূজা বা চতুর্ভূজা মূর্তিতে পূজিতা হন। দ্বিভূজা মূর্তিতে তাঁর দুই হাতে থাকে বীণা ও পুস্তক। চতুর্ভূজা মূর্তিতে তাঁর চার হাতে থাকে পুস্তক, অক্ষমালা, কলস ও বীণা। এই প্রত্যেকটি বস্তুরই হিন্দুধর্মে প্রতীকী অর্থ রয়েছে।

দেবী সরস্বতীর নামের বুৎপত্তি ও অর্থ

  • (১) সরস ও বতী দুই সংস্কৃত শব্দের সন্ধির মাধ্যমে সরস্বতী নামটির উৎপত্তি। সরস শব্দের আক্ষরিক অর্থ হ্রদ বা সরোবর হলেও এর অন্য অর্থ “বাক্য”। বতী শব্দের অর্থ “যিনি অধিষ্ঠাত্রী”।
  • (২) আদিতে “সরস্বতী” নামে পরিচিত এক বা একাধিক নদীর সঙ্গে যুক্ত হলেও এই নামটির আক্ষরিক অর্থ “যে দেবী পুষ্করিণী, হ্রদ ও সরোবরের অধিকারিণী” বা ক্ষেত্রবিশেষে যে দেবী বাক্যের অধিকারিণী।

সরস্বতী দেবীর ঋগ্বেদে উল্লেখ

ঋগ্বেদে নদী ও গুরুত্বপূর্ণ এক দেবী দুই অর্থেই “সরস্বতী” নামটি পাওয়া যায়। প্রথম দিকে শব্দটি ব্যবহৃত হয়েছে সরস্বতী নদী অর্থে। তারপর সরস্বতীকে এক নদী দেবতা হিসেবে উপস্থাপনা করা হয়েছে। ঋগ্বেদ -এর দ্বিতীয় মণ্ডলে সরস্বতীকে শ্রেষ্ঠ মাতা, শ্রেষ্ঠ নদী ও শ্রেষ্ঠ দেবী হিসেবে বর্ণনা করা হয়েছে।

দেবী সরস্বতীর বিভিন্ন নাম

প্রাচীন হিন্দু সাহিত্যে সরস্বতী বিভিন্ন নামে পরিচিত। যেমন –

  • (১) ব্রহ্মার শক্তি – ব্রহ্মাণী।
  • (২) বিজ্ঞানের দেবী – ব্রাহ্মী।
  • (৩) ইতিহাসের দেবী – ভারতী।
  • (৪) অক্ষরের দেবী – বর্ণেশ্বরী।
  • (৫) যিনি কবিগণের জিহ্বাগ্রে বাস করেন – কবিজিহ্বাগ্রবাসিনী।
  • (৬) যিনি বিদ্যা দান করেন – বিদ্যাদাত্রী।
  • (৭) যিনি বীণা বাজান – বীণাবাদিনী।
  • (৮) যিনি হস্তে পুস্তক ধারণ করেন –পুস্তকধারিণী।
  • (৯) যাঁর হাতে বীণা শোভা পায় – বীণাপাণি।
  • (১১) যে দেবীর বাহন রাজহংস – হংসবাহিনী।
  •  (১১) বাক্যের দেবী – বাগ্দেবী।

বাংলা ভাষায় দেবী সরস্বতীর অন্যান্য নাম

সারদা, বাগ্দেবী, বাগীশা, বাগীশ্বরী, বাঙ্ময়ী, বিদ্যাদেবী, বাণী, বীণাপাণি, ভারতী, মহাশ্বেতা, শতরূপা, গীর্দেবী, সনাতনী, পদ্মাসনা, হংসারূঢ়া, হংসবাহনা, হংসবাহিনী, কাদম্বরী, শ্বেতভূজা, শুক্লা ও সর্বশুক্লা ইত্যাদি।

তেলুগু ভাষায় দেবী সরস্বতীর অন্যান্য নাম

তেলুগু ভাষায় দেবী সরস্বতী চদুবুলা তাল্লি বা শারদা নামে পরিচিত। কোঙ্কণি ভাষায় সরস্বতী পরিচিত শারদা, বীণাপাণি, পুস্তকধারিণী ও বিদ্যাদায়িণী নামে।

কন্নড় ভাষায় দেবী সরস্বতীর অন্যান্য নাম

কন্নড় ভাষায় প্রচলিত দেবী সরস্বতীর বিখ্যাত নামান্তরগুলি হল শারদে, শারদাম্বা, বাণী ও বীণাপাণি। এই নাম গুলি শৃঙ্গেরী মন্দিরে দেখা যায়।

তামিল ভাষায় দেবী সরস্বতীর অন্যান্য নাম

তামিল ভাষায় দেবী সরস্বতী কলৈমগল, নামগল, কলৈবাণী, বাণী ও ভারতী নামে পরিচিত।

ভারতের বাইরে দেবী সরস্বতীর অন্যান্য নাম

ভারতীয় উপমহাদেশের বাইরে দেবী সরস্বতী বর্মি ভাষায় থুরাথাডি বা তিপিটক মেডাউ নামে, চীন দেশে চীনা ভাষায় Biàncáitiān নামে, জাপান দেশে জাপানি ভাষায় বেনজাইতেন নামে এবং থাই ভাষায় সুরতসওয়াদি বা সরতসওয়াদি নামে পরিচিত।

দেবী সরস্বতীর প্রতিমা কল্পনা

ধ্যানমন্ত্রে বর্ণিত প্রতিমাটিতে সরস্বতী দেবীকে শ্বেতবর্ণা, শ্বেতপদ্মে আসীনা, মুক্তার হারে ভূষিতা, পদ্মলোচনা ও বীণাপুস্তক ধারিণী এক দিব্য নারীমূর্তিরূপে কল্পনা করা হয়েছে।

রামায়ণের সাথে দেবী সরস্বতীর যোগ

রামায়ণ রচয়িতা বাল্মীকি যখন ক্রৌঞ্চ হত্যার শোকে বিহ্বল হয়ে পড়েছিলেন, সেই সময় জ্যোতির্ময়ী ব্রহ্মাপ্রিয়া সরস্বতী তাঁর ললাটে বিদ্যুৎ রেখার মত প্রকাশিত হয়েছিলেন।

দেবী সরস্বতীর উৎসব পালন

হিন্দুদের একাংশ সরস্বতীর পূজা করেন শ্রীপঞ্চমী বা বসন্ত পঞ্চমীর দিন। মাঘ মাসের শুক্লা পঞ্চমী তিথির এই দিনটি ভারতের বিভিন্ন অংশে সরস্বতী পূজা বা সরস্বতী জয়ন্তী নামেও পরিচিত। এই দিনটিতে শিশুদের হাতেখড়ি অনুষ্ঠান বা প্রথম অক্ষর শিক্ষার অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

সরস্বতী দেবীর পূজার সময় অরন্ধন পালন

দেবী সরস্বতীর পূজার দিন পশ্চিম বাংলার, বিশেষত পশ্চিমবঙ্গ -এর হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ রান্না করে রাখে এবং পরের দিন সেই বাসি খাবার খায়। এই বিশেষ পার্বণ অরন্ধন উৎসব নামে পরিচিত।

বৌদ্ধ ও জৈনদের পূজা দেবী সরস্বতীর

পশ্চিম ও মধ্য ভারত -এ জৈন ধর্ম অবলম্বীরাও সরস্বতীর পূজা করেন। এছাড়া বৌদ্ধ ধর্ম -এর কোনও কোনও সম্প্রদায়েও সরস্বতী পূজা প্রচলিত।

দেবী সরস্বতীর স্তব বা মন্ত্র

শ্বেতপদ্মাসনাদেবী শ্বেত পুষ্পোশোভিতা।

শ্বেতাম্বরধরা নিত্যা শ্বেতগন্ধানুলেপনা।

শ্বেতাক্ষসূত্রহস্তা চ শ্বেতচন্দনচর্চিতা।

শ্বেতবীণাধরা শুভ্রা শ্বেতালঙ্কারভূষিতা।

বন্দিতা সিদ্ধগন্ধর্ব্বৈরচ্চৈর্তা দেবদানবৈঃ।

পূজিতা মুনিভিঃ সর্ব্বৈঋষিভিঃ সদা।

স্তোত্রেণানেন তাং দেবীং জগদ্ধাত্রীং সরস্বতীম।

যে স্মরতি ত্রিসন্ধ্যায়াং সর্ব্বাং বিদ্যাং লভন্তি তে।

সরস্বতী দেবীর উদ্দ্যেশে পুষ্পাঞ্জলি দেওয়া

ঔঁ ভদ্রকালৈ নমো নিত্যং সরস্বতৈ নমো নমঃ।

বেদ-বেদান্ত বেদাঙ্গ-বিদ্যাস্থানেভ্যঃ এব চ।

এষ স-চন্দন বিল্বপত্র পুষ্পাঞ্জলি ঔঁ ঔঁং শ্রী শ্রী সরস্বতৈ নমঃ।

দেবী সরস্বতীকে প্রার্থনা জানানো

ওম যা কুন্দেন্দু তুষারহারধবলা যা শ্বেতপদ্মাসনা, যা বীণাধর-দণ্ড মণ্ডিতভূজা যা শুভ্রাবস্ত্রাবৃতা। যা ব্রহ্মচ্যুত-শঙ্কর-প্রভৃতিভিদেবৈঃ সদা বন্দিতা। সা মাং পাতু সরস্বতী ভগবতী নিঃশেষ জাড্যাপহা। যথা ন দেবো ভগবান ব্রহ্মা তোল পিতামহঃ ত্বাং পরিত্যাজ্য সন্তিষ্ঠেৎ তথা ভব বরপ্রদা। বেদা শাস্ত্রানি সর্ব্বাণি নৃত্যগীতাদিকঞ্চ যৎ। ন বিহীনং ত্বয়া দেবি তথা মে সন্তু সিদ্ধয়ঃ। লক্ষ্মীর্মেধা ধারা পুষ্টিঃ গৌরী তুষ্টিঃ প্রভা ধৃতি। এতাভিঃ পাহি তনুভিরষ্টাভির্ম্মাং সরস্বতী।

সরস্বতী দেবীকে প্রণাম জানানো

ওম জয় জয় দেবী চরাচর সারে।

কুচযুগশোভিত মুক্তাহারে।

বীণা রঞ্জিত পুস্তক হস্তে ভগবতী ভারতী দেবী নমোস্তুতে।

ওম সরস্বতী মহাভাগে বিদ্যে কমলোলোচনে।

বিশ্বরূপে বিশালাক্ষ্মী বিদ্যাং দেবী নমোস্তুতে।

উপসংহার :- ঋগ্বেদে ও যজুর্বেদ -এ বহুবার ইড়া, ভারতী, সরস্বতীকে একসঙ্গে দেখা যায়। বেদ -এর মন্ত্রগুলি পর্যালোচনায় ধারণা হয় যে, সরস্বতী মূলত সূর্যাগ্নি।

(FAQ) দেবী সরস্বতী সম্পর্কে জিজ্ঞাস্য?

১. ঋগ্বেদের যুগে নদীর দেবী কে ছিলেন?

দেবী সরস্বতী।

২. কোন মাসে সরস্বতী পূজা অনুষ্ঠিত হয়?

মাঘ মাসে।

৩. দেবী সরস্বতীর অন্য দুটি নাম লেখ।

বীণাপাণি, বাগ্দেবী।

৪. দেবী সরস্বতীর বাহন কি?

রাজহাঁস।

Leave a Reply

Translate »