ফিরোজ শাহ মেহতা

ভারতীয় পার্সী রাজনীতিবিদ ফিরোজ শাহ মেহতা -র জন্ম, পিতৃপরিচয়, শিক্ষা, মেহতার সহকর্মী, বিশ্ববিদ্যালয়ের ফেলো, বোম্বে মিউনিসিপ্যালিটির জনক, বোম্বে পুরসভার কমিশনার, জাতীয় কংগ্রেসের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য, বোম্বে পুরসভার সভাপতি, বোম্বে প্রেসিডেন্সি অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি, আইন ব্যাবসায় প্রবেশ, সমাজ সংস্কারক, লেজিসলেটিভ কাউন্সিলের সদস্য, জাতীয় কংগ্রেসের সভাপতি, নাইট কমাণ্ডার, পত্রিকা প্রকাশ, তরুণদের অনুপ্রেরণা, সম্মাননা ও তার মৃত্যু সম্পর্কে জানবো।

Table of Contents

ফিরোজ শাহ মেহতা

জন্ম৪ ই আগস্ট, ১৮৪৫ খ্রিস্টাব্দ
পেশাআইনজীবী
পরিচিতিরাজনীতিবিদ
মৃত্যু৫ নভেম্বর, ১৯১৫ খ্রিস্টাব্দ
ফিরোজ শাহ মেহতা

ভূমিকা:- বোম্বাইয়ের একজন ভারতীয় পার্সি রাজনীতিবিদ ও আইনজীবীছিলেন ফিরোজ শাহ মেহতা। তিনি ব্রিটিশ সরকার কর্তৃক নাইট উপাধিতে ভূষিত হন।

ফিরোজ শাহ মেহতার জন্ম

ফিরোজশাহ মেরওয়ানজি মেহতা ১৮৪৫ সালের ৪ আগস্ট ব্রিটিশ ভারতের বোম্বে প্রেসিডেন্সির একজন গুজরাট ভাষী পার্সি জরথুষ্ট্র পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।

ফিরোজ শাহ মেহতার পিতৃপরিচয়

তাঁর পিতা বোম্বাইয়ের একজন ব্যবসায়ী হলেও কলকাতায় প্রচুর সময় কাটিয়েছিলেন।তিনি উচ্চ শিক্ষিত ছিলেন না, তবে তিনি রসায়নের একটি পাঠ্যপুস্তক গুজরাটি ভাষায় অনুবাদ করেছিলেন এবং একটি ভূগোল পাঠ্যপুস্তক লিখেছিলেন।

ফিরোজ শাহ মেহতার শিক্ষা

১৮৬৪ সালে এলফিনস্টোন কলেজ থেকে স্নাতক হয়ে ফিরোজশাহ ছয় মাস পরে অনার্স সহ তার স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন।তিনি ছিলেন বোম্বে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন কারী প্রথম পার্সি।

মেহতার সহকর্মী

মেহতা ভারত থেকে ইংল্যান্ডে গিয়েছিলেন আইন পড়তে। এখানে তিনি ভারতের সহকর্মী ব্যারিস্টার উমেশচন্দ্র ব্যানার্জীবদরুদ্দিন তৈয়াবজির সাথে দেখা করেন এবং মেলামেশা শুরু করেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ফেলো

বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ স্যার আলেকজান্ডার গ্রান্ট তাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ফেলো মনোনীত করেন এবং ইউরোপে অধ্যয়নের জন্য জামসেদজী জেজীভয় কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত একটি বৃত্তি অর্জনের চেষ্টা করেন।

বোম্বে মিউনিসিপ্যালিটির জনক

তিনি ১৮৭২ সালে বোম্বে মিউনিসিপ্যাল ​​অ্যাক্টের খসড়া তৈরি করেন। এইঅবদানের জন্য তাকে ‘বোম্বে মিউনিসিপ্যালিটির জনক’ হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

বোম্বাই পুরসভার কমিশনার

১৮৭৩ সালে তিনি বোম্বাই পুরসভার কমিশনার হন।

জাতীয় কংগ্রেসের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য

তিনি ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস দলের একজন অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ছিলেন।

বোম্বাই পুরসভার সভাপতি

১৮৮৪, ১৮৮৫, ১৯০৫ এবং ১৯১১ খ্রিস্টাব্দে চারবার বোম্বাই পুরসভার সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন।

বোম্বে প্রেসিডেন্সি অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি

১৮৮৫ সালে বোম্বে প্রেসিডেন্সি অ্যাসোসিয়েশন প্রতিষ্ঠিত হলে মেহতা এর সভাপতি নিযুক্ত হন।

আইন ব্যবসায় প্রবেশ

১৮৮৬ সালে লিঙ্কনস ইন থেকে বারে ডাকা প্রথম পার্সি ব্যারিস্টার হন ফিরোজ শাহ মেহতা। এই বছরই তিনি ভারতে ফিরে এসে বারে বারে যাওয়া শুরু করেন। শীঘ্রই তিনি ব্রিটিশ আইনজীবীদের দ্বারা প্রভাবিত একটি পেশায় নিজে অনুশীলন শুরু করেন।

পাশ্চাত্য শিক্ষা গ্ৰহণে উৎসাহ

তিনি ভারতীয়দেরকে পাশ্চাত্য শিক্ষা গ্রহণ করতে এবং দেশের উন্নতির জন্য ভারতের সংস্কৃতি গ্রহণ করতে উৎসাহিত করেছিলেন।

সমাজ সংস্কারক

তিনি শহর এবং ভারতের আশেপাশে শিক্ষা, স্যানিটেশন এবং স্বাস্থ্য পরিচর্যার জন্য অনেক সামাজিক কাজে অবদান রেখেছিলেন।

অভ্যর্থনা কমিটির চেয়ারম্যান

মেহতা ছিলেন ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা।১৮৮৯ সালে বোম্বেতে অভ্যর্থনা কমিটির পঞ্চম অধিবেশনে মেহতা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন।

লেজিসলেটিভ কাউন্সিলের সদস্য

মেহতা ১৯৮৭ সালে বোম্বে লেজিসলেটিভ কাউন্সিলে মনোনীত হন এবং ১৮৯৩ সালে ইম্পেরিয়াল লেজিসলেটিভ কাউন্সিলের সদস্য হন।

জাতীয় কংগ্রেসের সভাপতি

মেহতা ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা সদস্য এবং ১৮৯০ সালে কলকাতায় অনুষ্ঠিত কংগ্রেসের অধিবেশনে সভাপতি ছিলেন।

নাইট কমাণ্ডার

১৮৯৪ সালে তিনি ব্রিটিশ ভারতীয় সাম্রাজ্যের একজন সঙ্গী নিযুক্ত হন এবং ১৯০৪ সালে একজন নাইট কমান্ডার রূপে নিযুক্ত হন।

পত্রিকা প্রকাশ

মেহতা ১৯১০ সালে দ্য বম্বে ক্রনিকল শুরু করেন।এটি ছিল একটিইংরেজি ভাষার সাপ্তাহিক সংবাদপত্র, যা সেই সময়েএকটি গুরুত্বপূর্ণ জাতীয়তাবাদী কণ্ঠে পরিণত হয়েছিল।

হিরোসাস মেহতা

রাজনীতিতে ভারতীয়দের ক্রিয়াকলাপের সাথে জড়িত কয়েকজনের মধ্যে একজন হিসাবে, তাকে “হিরোসাস মেহতা” ডাকনাম দেওয়া হয়েছিল।

তরুণদের অনুপ্রেরণা

তিনি যুগের তরুণ ভারতীয়দের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ অনুপ্রেরণা হিসাবে সম্মানিত। ভারতের বার এবং আইনী পেশায় তার নেতৃত্ব এবং রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে ভারতীয় সম্পৃক্ততার ভিত্তি স্থাপন এবং ভারতীয়দের স্বায়ত্ত্বশাসনের জন্য লড়াই করতে তিনি তরুণদের অনুপ্রাণিত করেন।

সম্মাননা

  • (১) জাতি গঠনে মেহতার গুরুত্বের কথা স্বীকার করে ভারতীয় সংসদ ভবনে তার একটি প্রতিকৃতি স্থাপন করা হয়েছে।
  • (২) তিনি ‘দ্য লায়ন অফ বোম্বে’ এবং ‘আনক্রাউনড কিং অফ বোম্বে’ নামে পরিচিত ছিলেন। মুম্বাইতে, আজও মেহতাকে অনেক শ্রদ্ধা করা হয়, তার নামে রাস্তা, হল ও আইন কলেজ আছে।

ফিরোজ শাহ মেহতার মৃত্যু

ফিরোজ শাহ মেহতা ৫ নভেম্বর ১৯১৫ খ্রিস্টাব্দে বোম্বাইয়ে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

উপসংহার:- মেহতার জীবদ্দশায় তিনি ছাড়া খুব কম ভারতীয়ই ব্রিটেনে থেকে পূর্ণ রাজনৈতিক স্বাধীনতার ধারণা নিয়ে আলোচনা করেছিলেন বা গ্রহণ করেছিলেন।

(FAQ) ফিরোজ শাহ মেহতা সম্পর্কে জিজ্ঞাস্য?

১. কংগ্রেসের প্রথম সারির দুজন বিশিষ্ট নেতার নাম লেখ।

ফিরোজ শাহ মেহতা, বদরুদ্দীন তৈয়াবজী।

২. ফিরোজ শাহ মেহতা কংগ্রেসের কোন অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন?

১৮৯০ খ্রিস্টাব্দে কলকাতা অধিবেশনে।

৩. দ্য লায়ন অফ বোম্বে কাকে বলা হত?

ফিরোজ শাহ মেহতা।

Leave a Reply

Translate »