কোড নেপোলিয়ন

কোড নেপোলিয়ন -এর প্রবর্তক, কমিশন গঠন, সভাপতি, নামকরণ, সমন্বয়, ধর্মীয় কলুষমুক্ত, আইনের সংখ্যা, বিভাগ, বৈশিষ্ট্য, অন্যান্য রাষ্ট্রের গ্ৰহণ, আইন বিধির ত্রুটি ও গুরুত্ব সম্পর্কে জানবো।

কোড নেপোলিয়ন

প্রচলন কাল১৮০৪ খ্রিস্টাব্দে
প্রবর্তকনেপোলিয়ন বোনাপার্ট
আইনবিধি২২৮৭ টি
কোড নেপোলিয়ন

ভূমিকা :- নেপোলিয়নের সর্বাপেক্ষা উল্লেখযোগ্য ও গৌরবময় কীর্তি হল তাঁর ‘আইন সংহিতা’ বা ‘কোড নেপোলিয়ন’। এতদিন পর্যন্ত ফ্রান্স ও বিভিন্ন প্রদেশে কোনও সাধারণ আইনবিধি প্রচলিত ছিল না।

প্রচলিত আইনের সংখ্যা

সমগ্র দেশে নানা ধরনের বৈষম্যমূলক, পরস্পর-বিরোধী এবং যুগের অনুপযোগী প্রায় ৩৬০টি বিভিন্ন ধরনের আইন প্রচলিত ছিল।

বিভিন্ন আইন

দেশের উত্তরে ছিল প্রথাগত আইন, দক্ষিণে রোমান আইন। এ ছাড়াও ছিল রাজকীয় আইন, সামন্ত আইন ও যাজকীয় আইন।

ব্যর্থ প্রচেষ্টা

সমগ্র ফ্রান্সে কোনও আইনগত ঐক্য ছিল না। কনভেনশন ও ডিরেক্টরি যুগে বিপ্লবী নেতৃবৃন্দ এইসব পরস্পর-বিরোধী আইনগুলির মধ্যে সামঞ্জস্য বিধান করে সারা দেশে এক ধরনের আইন প্রণয়নের চেষ্টা করেন, কিন্তু এ কাজে তাঁরা সফল হন নি।

কমিশন গঠন

নেপোলিয়নের উদ্যোগে ফ্রান্সের চারজন বিশিষ্ট আইনজীবীকে নিয়ে গঠিত এক কমিশন ১৮০০-১৮০৪ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত চার বছরের অক্লান্ত পরিশ্রমের ফলে ১৮০৪ খ্রিস্টাব্দে একটি আইনবিধি সংকলন করে।

অধিবেশনের সভাপতি

আইনের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনার জন্য মোট ৮৪টি অধিবেশন বসে। এর মধ্যে ৩৬টি অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন স্বয়ং নেপোলিয়ন।

নামকরণ

১৮০৭ খ্রিস্টাব্দে নেপোলিয়ন এর নামকরণ করেন ‘কোড নেপোলিয়ন’ বা ‘নেপোলিয়নের আইন সংহিতা”।

সমন্বয়

এই আইনবিধির মধ্যে ফ্রান্সের প্রাচীন আচার-অনুষ্ঠান, রোমান রীতি-নীতি এবং ফরাসি বিপ্লবী ঐতিহ্যের সমন্বয় লক্ষ্য করা যায়।

ধর্মীয় কলুষমুক্ত

এই আইনবিধি কোনওভাবেই ধর্মীয় বা রাজনৈতিক কুসংস্কার দ্বারা কলুষিত হয় নি। ‘কোড নেপোলিয়ন’-কে বিপ্লবের স্থায়ী ফল বলা যেতে পারে।

আইনের সংখ্যা ও বিভাগ

মোট ২২৮৭টি বিধি-সম্বলিত এই আইন সংহিতা তিনভাগে বিভক্ত – দেওয়ানি, ফৌজদারি ও বাণিজ্যিক আইন।

বৈশিষ্ট্য

এই আইন সংহিতার কয়েকটি বৈশিষ্ট্য হল –

  • (১) আইনের দৃষ্টিতে সমতা।
  • (২) ধর্মীয় সহিষ্ণুতা
  • (৩) যোগ্যতানুযায়ী সরকারি চাকরিতে নিয়োগ
  • (৪) বিপ্লবী ভূমিব্যবস্থার স্বীকৃতি
  • (৫) সামন্ততান্ত্রিক বৈষম্যের বিলুপ্তি
  • (৬) ব্যক্তি-স্বাধীনতা ও সম্পত্তির অধিকারের স্বীকৃতি।

অন্যান্য রাষ্ট্রে গৃহীত

এই আইনবিধির মূল নীতিগুলি পরবর্তীকালে ইউরোপের বিভিন্ন রাষ্ট্র কর্তৃক গৃহীত হয়েছিল। নেপোলিয়ন নিজেও তাঁর যুদ্ধগুলির চেয়ে এই আইন সংহিতাকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করতেন।

দ্বিতীয় জাস্টিনিয়ান

ঐতিহাসিক লেফেভর এই আইনবিধিকে সমাজে বাইবেলের সঙ্গে তুলনা করেছেন। এই আইনবিধির জন্য তাঁকে ‘দ্বিতীয় জাস্টিনিয়ান’ বলে অভিহিত করা হয়।

আইন বিধির ত্রুটি

এই আইনবিধি একেবারে ত্রুটিহীন ছিল না।

(১) প্রগতিহীন

এই আইনবিধিতে রোমান আইনকে অতিরিক্ত গুরুত্ব দেওয়ায় প্রগতিশীলতার সব পথ বন্ধ হয়ে যায়।

(২) নারীর মর্যাদা

এতে নারী সমাজের মর্যাদা হ্রাস করা হয়। নারীকে পুরুষের অধীনে রাখা হয়। পারিবারিক সম্পত্তির উপর তাদের কোনও অধিকার ছিল না, স্বামীর সম্পত্তি ছাড়া তারা কোনও সম্পত্তি অর্জন, বিক্রি বা দান করতে পারত না। বিবাহ-বিচ্ছেদের অধিকার সংকুচিত করা হয়।

(৩) স্বামী ও পিতার কর্তৃত্ব

স্ত্রী ও পুত্রের উপর স্বামী ও পিতার কর্তৃত্ব সুদৃঢ় করা হয়, যদিও ফরাসি বিপ্লব -এর আদর্শ হল সমানাধিকার।

(৪) শ্রমিক শ্রেণীকে বঞ্চনা

শ্রমিকদের অধিকারের স্বীকৃতি দেওয়া হয় নি।

গুরুত্ব

ত্রুটি সত্ত্বেও এই আইনবিধির গুরুত্ব অপরিসীম। ফিশার বলেন যে, “ফরাসি বিপ্লবের সাময়িক অনাচার ও অনুদার নীতি বর্জন করে কোড স্থায়ী বিজয়কে সুনিশ্চিত করে।

উপসংহার :- ফ্রান্সবাসীকে নেপোলিয়ন স্বাধীনতা দেন নি, কিন্তু তিনি বিপ্লবের সাম্যনীতিকে গ্রহণ করে ‘কোড নেপোলিয়ন’-এর মাধ্যমে ফ্রান্সে আইন, বিচার, কর ও চাকরির সমানাধিকার প্রতিষ্ঠা করেন।

(FAQ) কোড নেপোলিয়ন সম্পর্কে জিজ্ঞাস্য?

১. ফরাসি সমাজের ‘বাইবেল’ কাকে বলা হয়?

কোড নেপোলিয়নকে।

২. কে কখন কোড নেপোলিয়ন প্রণয়ন করেন?

ফরাসি সম্রাট নেপোলিয়ন ১৮০৪ খ্রিস্টাব্দে।

৩. কোড নেপোলিয়নে কতগুলি আইন বিধি ছিল?

২২৮৭ টি।

Leave a Reply

Translate »