সংবাদ সাগর পত্রিকা

সংবাদ সাগর পত্রিকা প্রসঙ্গে সংবাদ রসসাগর পত্রিকা সম্পর্কে হিন্দু ইন্টেলিজেন্সার-এ লেখনী, সংবাদ রসসাগর পত্রিকার সম্পাদক, সংবাদ রসসাগর পত্রিকার প্রকাশকাল, সংবাদ রসসাগর পত্রিকার সম্পাদক ক্ষেত্রমোহনের মৃত্যু, সংবাদ রসসাগর পত্রিকার সম্পাদক রঙ্গলাল বন্দ্যোপাধ্যায়, সংবাদ রসসাগর পত্রিকার নাম পরিবর্তন, সংবাদ রসসাগর নাম পরিবর্তন সম্পর্কে গুপ্ত কবির লেখনী ও সংবাদ সাগর পত্রিকার শেষ অবস্থা সম্পর্কে জানবো।

সংবাদ সাগর পত্রিকা

ঐতিহাসিক পত্রিকাসংবাদ সাগর পত্রিকা
ধরণসাপ্তাহিক পত্রিকা 
ভাষাবাংলা
প্রকাশকালমার্চ ১৮৪৯ খ্রি
সম্পাদকক্ষেত্রমোহন বন্দ্যোপাধ্যায়
সংবাদ সাগর পত্রিকা

ভূমিকা :- ১৮৪৯ সালের  মার্চ মাসে ক্ষেত্রমোহন বন্দ্যোপাধ্যায়ের সম্পাদকত্বে ‘সংবাদ রসসাগর’ নামে একটি সাপ্তাহিক পত্র প্রকাশিত হয়।

সংবাদ রসসাগর পত্রিকা সম্পর্কে হিন্দু ইন্টেলিজেন্সার-এ লেখনী

পরবর্তী ২৫ জুন ‘হিন্দু ইন্টেলিজেন্সার’ লেখে – “We were not aware of the existence of a weekly publication in Bengali, under the designation of Rusa Saagara, till last Tuesday, when we had the pleasure of receiving the fifteenth number of the paper….It is published at Molungs in the house of the editor Baboo Khettermohan Banerjee.”

সংবাদ রসসাগর পত্রিকার সম্পাদক

ক্ষেত্রমোহন বন্দ্যোপাধ্যায়ের সম্পাদনায় সংবাদ রসসাগর পত্রিকার প্রকাশনা শুরু হয়। পরবর্তীকালে রঙ্গলাল বন্দ্যোপাধ্যায় এই পত্রিকার সম্পাদক নিযুক্ত ছিলেন।

সংবাদ রস সাগর পত্রিকার প্রকাশকাল

১৮৪৯ সালের মার্চ মাসে সংবাদ রসসাগর তথা সংবাদ সাগর পত্রিকার পথ চলা শুরু হয়।

বারত্রয়িক পত্রিকা সংবাদ রসসাগর

১৮৪৯ সালের ডিসেম্বর মাস থেকে ‘সংবাদ সাগর’ বারত্রয়িক হয়। এই বিষয়ে ১৮৪৯ সালের ২৬ নভেম্বর ‘হিন্দু ইন্টেলিজেন্সার’ লিখেছিল – “We are requested to announce that the Rasasagur, a newspaper in Bengali, will from the 1st of next month, be published thrice a week, at the price of 8 annar a month….”

সংবাদ রসসাগর পত্রিকার সম্পাদক ক্ষেত্রমোহনের মৃত্যু

১৫ জুলাই ১৮৫০ সালে ক্ষেত্রমোহনের মৃত্যু হয়। ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্ত সংবাদ প্রভাকর পত্রিকায় লিখেছিলেন – “শ্রাবণ, ১২৫৭। এই মাসের প্রথম দিবসে আমারদিগের (স্নেহান্বিত সহযোগি সংবাদ রসসাগর সম্পাদক বাবু ক্ষেত্রমোহন বন্দ্যোপাধ্যায় মহাশয় নিদারুণ জ্বরবিকারে আক্রান্ত হয়ে মানবলীলা সম্বরণ করেন।”

সংবাদ রসসাগর পত্রিকার সম্পাদক রঙ্গলাল বন্দ্যোপাধ্যায়

ক্ষেত্রমোহনের মৃত্যুর পর রঙ্গলাল বন্দ্যোপাধ্যায় ‘সংবাদ রস সাগর’ পত্রের পরিচালন ভার গ্রহণ করেন। তিনি খিদিরপুর থেকে প্রতি সোম, বুধ ও শুক্র বারে এই পত্রিকা প্রকাশ করতেন।

সংবাদ রসসাগর পত্রিকার নাম পরিবর্তন

১২০৯ সালের বৈশাখ (১২ এপ্রিল ১৮০২) মাস থেকে রঙ্গলাল পত্রিকার নামকরণ করেন ‘সংবাদ সাগর’।

সংবাদ রসসাগর নাম পরিবর্তন সম্পর্কে গুপ্ত কবির লেখনী

১৪ এপ্রিল ১৮৫২ সালে গুপ্ত-কবি ‘সংবাদ প্রভাকর’ পত্রিকায় লিখেছিলেন – “আমারদিগের স্নেহান্বিত সহযোগী রসসাগর সম্পাদক নূতন বৎসরের শুভাগমনে রসসাগরকে রসহীন করিয়াছেন, অর্থাৎ পূর্বে পত্রের নাম ‘রসসাগর’ ছিল, এইক্ষণে ‘সংবাদ সাগর’ হইয়াছে, এই রসাভাব জন্ম পত্র আরো রসময় হইয়াছে, কারণ সাগরই রসের আকর, সাগরেই সুধা এবং সাগরেই রত্ন, অতএব প্রার্থনা, এই সাগর পূর্বে রসসাগর ছিল, অধুনা যশঃসাগর হউক।”

সংবাদ সাগর পত্রিকার শেষ অবস্থা

রঙ্গলাল কৃতিত্বের সাথে ১২৫৯ সাল পর্যন্ত ‘সংবাদ সাগর’ সম্পাদন করেছিলেন। ১ বৈশাখ ১২৬০ (১২ এপ্রিল ১৮৫৩) তারিখে ‘সংবাদ প্রভাকরে’ ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্ত লিখেছেন – “রসসাগর রসহীন হইয়া সাগর দেহ ধারণ করিয়া সংপ্রতি কিছুদিনের নিমিত্ত প্রবাহ শূন্য হইলেন।”

উপসংহার :- ‘সংবাদ সাগর’ পত্রিকা বন্ধ হবার পর রঙ্গলাল বন্দ্যোপাধ্যায় ‘সংবাদ প্রভাকরে’ ১৬ জুন ১৮৫৩ সালে একটি পত্র প্রকাশ করেন।

(FAQ) সংবাদ সাগর পত্রিকা সম্পর্কে জিজ্ঞাস্য?

১. সংবাদ রসসাগর কি ধরণের পত্রিকা?

সাপ্তাহিক পত্রিকা।

২. সংবাদ রসসাগর পত্রিকার সম্পাদক কে ছিলেন?

ক্ষেত্রমোহন বন্দ্যোপাধ্যায়।

৩. সংবাদ রসসাগর পত্রিকা প্রকাশিত হয় কখন?

মার্চ ১৮৪৯ খ্রিস্টাব্দে।

৪. সংবাদ রসসাগর পরবর্তীতে কি নামে পরিচিত হয়?

সংবাদ সাগর পত্রিকা।

অন্যান্য ঐতিহাসিক পত্রিকাগুলি

Leave a Comment