সংবাদ প্রভাকর পত্রিকা

আজ সংবাদ প্রভাকর পত্রিকা -র সম্পাদক, প্রকাশকাল, উদ্দেশ্য, পত্রিকা প্রকাশের প্রেক্ষাপট, প্রকাশনার বিভিন্ন দিক, পত্রিকার জনপ্রিয়তা সম্পর্কে জানবো।

সংবাদ প্রভাকর পত্রিকা

ধরণদৈনিক সংবাদপত্র
প্রকাশকঈশ্বরচন্দ্র গুপ্ত
প্রকাশকাল১৮৩১ খ্রিস্টাব্দ
প্রথম সম্পাদকঈশ্বরচন্দ্র গুপ্ত
সংবাদ প্রভাকর পত্রিকা

ভূমিকা :- বাংলা ভাষায় প্রকাশিত প্রথম দৈনিক সংবাদপত্র হল সংবাদ প্রভাকর। ১৮৩১ সালে একটি সাপ্তাহিক সংবাদপত্র হিসেবে এটি চালু হয় এবং ১৮৩৯ সালে এটি একটি দৈনিক সংবাদপত্রে রূপান্তরিত হয়।

প্রকাশকাল

১৮৩১ খ্রিস্টাব্দের ২৮ জানুয়ারি কলকাতা থেকে এই পত্রিকাটি প্রথম প্রকাশিত হয়।

আত্মপ্রকাশ

১৮৩১ খ্রিষ্টাব্দের ২৮ জানুয়ারি পত্রিকাটি সাপ্তাহিক হিসেবে প্রথম আত্মপ্রকাশ করে। পত্রিকার নামের নিচে লেখা থাকতো ‘প্রাত্যহিকপত্র’।

প্রকাশক

এই পত্রিকাটির উদ্যোক্তা ও প্রকাশক ছিলেন কবি ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্ত।

সম্পাদক

বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ এই পত্রিকা সম্পাদনা করেছেন। প্রথম সম্পাদক ছিলেন কবি ঈশ্বর গুপ্ত। এরপর রামচন্দ্র গুপ্ত, গোপালচন্দ্র মুখোপাধ্যায়, মণীন্দ্রকৃষ্ণ গুপ্ত প্রমুখ এই পত্রিকার সম্পাদনা করেন।

বিষয়বস্তু

ব্রিটিশ ভারত ও বিদেশের সংবাদ প্রকাশের পাশাপাশি এই সংবাদপত্র ধর্ম, রাজনীতি, সমাজ ও সাহিত্য সম্পর্কে নিজস্ব মতামত প্রকাশ করত।

বিশেষ প্রভাব

বাংলার নবজাগরণ ও নীল বিদ্রোহ -এর প্রতি মানুষকে সহানুভূতিশীল করে তোলার ক্ষেত্রে এই সংবাদপত্রের বিশেষ প্রভাব ছিল।

প্রকাশনা বন্ধ

সংবাদ প্রভাকর ছিল ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্তের মস্তিস্কপ্রসূত একটি সংবাদপত্র। তার পৃষ্ঠপোষক ছিলেন পাথুরিয়াঘাটার যোগেন্দ্রমোহন ঠাকুর। তার মৃত্যুর পর ১৮৩২ সালে এই সংবাদপত্রটি সাময়িকভাবে বন্ধ হয়ে যায়।

পুনরায় চালু

১৮৩৬ সালের ১০ অগস্ট ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্ত একটি ত্রি-সাপ্তাহিক সংবাদপত্র হিসেবে এটি আবার চালু করেন। এখন থেকে সপ্তাহে তিন দিন প্রকাশিত হয়।

অর্থ সাহায্য

১৯৩৭ সালে পাথুরিয়াঘাটার ঠাকুর পরিবার আবার এই সংবাদপত্রটিকে অর্থসাহায্য করতে শুরু করেন এবং ১৮৩৯ সালের ১৪ জুন সংবাদ প্রভাকর বাংলা ভাষার প্রথম দৈনিক সংবাদপত্র হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে।

বিশিষ্ট লেখক

এই পত্রিকায় হরিনাথ মজুমদার বা কাঙাল হরিনাথ, বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়, রাধাকান্ত দেব প্রমুখ বিশিষ্ট লেখক এই পত্রিকায় নিয়মিত লেখতেন।

চোরাবাগান প্রেস

পাথুরিয়া ঘাটা ঠাকুর পরিবারের যোগেন্দ্রমোহন ঠাকুর কবি ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্ত-এর বিশেষ ভক্ত ছিলেন। মূলত যোগেন্দ্রমোহন ঠাকুর অর্থায়নে চোরাবাগানের একটি প্রেস থেকে এই পত্রিকার প্রকাশনা শুরু হয়।

মুদ্রণযন্ত্র স্থাপন

১২৩৮ বঙ্গাব্দের শ্রাবণ মাসে পাথুরিয়া ঘাটা ঠাকুর-বাড়িতে এই পত্রিকার জন্য একটি মুদ্রণযন্ত্র স্থাপন করা হয়।

কবি ও কাব্যালোচনার সূত্রপাত

সম্পাদক ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্ত নিজের উদ্যোগে লুপ্তপ্রায় কবি ও কাব্য আলোচনার সূত্রপাত করেন এই পত্রিকায়।

মাসিক সংস্করণ

১২৬০ বঙ্গাব্দ থেকে প্রতিমাসে এই পত্রিকাটির একটি মাসিক সংস্করণ প্রকাশিত হত। ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্ত প্রাচীন কবিদের রচনা সংগ্রহের যে উদ্যোগ নিয়েছিলেন, তারই কিছু কিছু এই মাসিক সংস্করণে প্রকাশ করা হত।

লেখক চক্র

সেই সময়কালে এই পত্রিকার মাসিক সংস্করণের সাহিত্যপাতাকে কেন্দ্র করে একটি লেখকচক্র গড়ে উঠেছিল।

বুদ্ধিদীপ্ত আলোচনা

স্বদেশ, সমাজ ও সাহিত্য সংক্রান্ত বুদ্ধিদীপ্ত আলোচনা এই পত্রিকাতেই প্রথম প্রকাশিত হতে থাকে।

প্রাধান্য বিষয়

পত্রিকাটিতে সামাজিক ও সাময়িক আন্দোলনের খবরাখবর থাকলেও, ভাষা ও সাহিত্য বিষয়ক রচনারই প্রাধান্য ছিল এই পত্রিকায়।

উপসংহার :- ১৮৫৯ খ্রিষ্টাব্দে মৃত্যুর তিন মাস আগেই ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্ত এই পত্রিকা থেকে অব্যাহতি নিয়েছিলেন। এরপর তাঁর ভাই রামচন্দ্র গুপ্ত এই পত্রিকার সম্পাদক হন। কিছুদিন এই পত্রিকা চলার পর বন্ধ হয়ে গিয়েছিল।

(FAQ) সংবাদ প্রভাকর পত্রিকা সম্পর্কে জিজ্ঞাস্য?

১. সংবাদ প্রভাকর পত্রিকার সম্পাদক কে ছিলেন?

ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্ত।

২. সংবাদ প্রভাকর পত্রিকা প্রথম কবে প্রকাশিত হয়?

১৮৩১ খ্রিস্টাব্দে।

৩. বাংলা ভাষায় প্রকাশিত প্রথম দৈনিক পত্রিকার নাম কী?

সংবাদ প্রভাকর।

Leave a Reply

Translate »