সম্বাদ রসরাজ পত্রিকা

সম্বাদ রসরাজ পত্রিকা প্রসঙ্গে সম্বাদ রসরাজ পত্রিকার সম্পাদক, সম্বাদ রসরাজ পত্রিকার জন্ম, সম্বাদ রসরাজ পত্রিকার গ্ৰাহক সংখ্যা বৃদ্ধি,সম্বাদ রসরাজ পত্রিকার সম্পাদক গৌরীশঙ্কর তর্কবাগীশের বিরুদ্ধে মামলা, সম্বাদ রসরাজ পত্রিকার পুনঃপ্রকাশ, সম্বাদ রসরাজ পত্রিকার দণ্ড, সমাচার দর্পণে সম্বাদ রসরাজ পত্রিকার দণ্ডের খবর প্রকাশ ও নব কলেবরে উদিত সম্বাদ রসরাজ পত্রিকা সম্পর্কে জানবো।

সম্বাদ রসরাজ পত্রিকা

ঐতিহাসিক পত্রিকাসম্বাদ রসরাজ পত্রিকা
ধরণসাপ্তাহিক পত্রিকা
ভাষাবাংলা
প্রকাশকাল২৯ নবভেম্বর ১৮৩৯ খ্রি
প্রথম সম্পাদককালীকান্ত গঙ্গোপাধ্যায়
পরিচালকগৌরীশঙ্কর তর্কবাগীশ
সম্বাদ রসরাজ পত্রিকা

ভূমিকা :- ‘সম্বাদ রসরাজ’ পত্রের প্রথম সংখ্যার প্রকাশকাল ২৯ নভেম্বর ১৮৩৯ খ্রিস্টাব্দ (১৫ অগ্রহায়ণ ১২৪৬)। এটি প্রথমে সাপ্তাহিক রূপে প্রতি শুক্রবারে, পরে অর্দ্ধ-সাপ্তাহিক রূপে প্রতি মঙ্গল ও শুক্রবারে প্রকাশিত হত।

সম্বাদ রসরাজ পত্রিকার সম্পাদক

পূর্বের ‘সম্বাদ ভাস্কর’ পত্রিকার সম্পাদক গৌরীশঙ্কর তর্কবাগীশই ‘সম্বাদ রসরাজে’র পরিচালক ছিলেন। একই সম্পাদকীয় দায়িত্বে উভয় পত্রিকা প্রকাশিত হলেও ‘সম্বাদ রসরাজে’র সম্পাদক-রূপে প্রথমে কালীকান্ত গঙ্গোপাধ্যায়ের এবং পরে গঙ্গাধর ভট্টাচার্য্যের নাম মুদ্রিত হত। গঙ্গাধরের মৃত্যুর (বৈশাখ ১২৬০) পর ‘সম্বাদ রসরাজে’র সম্পাদক রূপে ধর্মদাস মুখোপাধ্যায়ের নাম পাওয়া যায়।

সম্বাদ রসরাজ পত্রিকার জন্ম

“পাপের দমন ও ধর্ম অনুষ্ঠানে প্রবৃত্তি দেবার জন্য” “সম্বাদ রসরাজের জন্ম হলেও অকথ্য গালিগালাজ ও অশ্লীলতা এর পৃষ্ঠা কলঙ্কিত করেছিল।

সম্বাদ রসরাজ পত্রিকার গ্ৰাহক সংখ্যা বৃদ্ধি

এই পত্রিকার গ্রাহক সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছিল। সেই যুগের কোনো ভাল সংবাদপত্রেরও এত গ্রাহক ছিল না।

সম্বাদ রসরাজ পত্রিকার সম্পাদক গৌরীশঙ্কর তর্কবাগীশের বিরুদ্ধে মামলা

  • (১) কাসিমবাজারের রাজা কৃষ্ণনাথ ও তাঁর পত্নী স্বর্ণময়ী সম্বন্ধে কুৎসা প্রচার করায় ১৮৪৩ সালের ১৭ই জানুয়ারি কলকাতার সুপ্রীম কোর্টে গৌরীশঙ্কর দোষী সাব্যস্ত হন। ১৮৫৫ সালে লালা ঈশ্বরীপ্রসাদও তাঁর বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেন। উভয় ক্ষেত্রেই বিচারে গৌরীশঙ্করের পাচ শত টাকা অর্থদণ্ড ও ছয় মাস করে কারাবাসের আদেশ হয়েছিল। এছাড়া জামিন ও মুছলেখার ব্যবস্থা ত ছিলই।
  • (২) এত দুর্ভোগেও কিন্তু গৌরীশঙ্করের চৈতন্য হয় নি। শেষে “২৮ অগ্রহায়ণের রসরাজে বিধবা বিবাহের অনুকূলে অত্র নগরীয় সর্ব্বমান্য দলপতি মহামতি মহোদয়দিগের পরিবার পরীবাদ অকথ্য অসত্য প্রকাশ করাতে ভূবনমান্য কলকাতার রাজগণেরাই রসরাজের মুণ্ডুপাতার্থে দণ্ডধর হলেন, ধীরাগ্রগণ্য অক্রোধী শ্রীমন্মহারাজ কমলকৃষ্ণ বাহাদুরের ক্রোধ উপস্থিত হওয়াতে রসরাজের নামে শ্রীশ্রীমতী মহারাণীর সুপ্রীম কোর্টে অভিযোগের উদ্যোগ করাতেই রসরাজ অবনত হয়ে বাজ বাহাদুরের কমলকরে আত্মসমর্পণ করতঃ প্রাণত্যাগ করেছে”

সম্বাদ রসরাজ পত্রিকার পুনঃপ্রকাশ

তর্কবাগীশের মৃত্যুর (৫ ফেব্রুয়ারি ১৮৫৯) পর তাঁর পালিত পুত্র ক্ষেত্রমোহন ভট্টাচার্য্য ১৮৬১ সালের এপ্রিল মাসে ‘সম্বাদ রসরাজ’ পুনঃপ্রকাশ করেছিলেন।

সম্বাদ রসরাজ পত্রিকার দণ্ড

এই পত্রিকাটি পূর্বস্বভাব বর্জন করতে পারে নি। অযথা গালাগালি ও নিন্দাবাদের ফলে আবার তাকে রাজদ্বারে দণ্ডিত হতে হয়।

সমাচার দর্পণে সম্বাদ রসরাজ পত্রিকার দণ্ডের খবর প্রকাশ

১৬ জুন ১৮৬২ তারিখের ‘সোমপ্রকাশে’ এই সংবাদটি মুদ্রিত হয়, ৩২ জ্যৈষ্ঠ শুক্রবার।… রসরাজের ধর্মদাস মুখোপাধ্যায় ও ক্ষেত্রমোহন ভট্টাচার্য্যের বিচার হইয়া ক্ষেত্রমোহনের ৫০০ টাকা জরিমানা ও ৩ মাস মিয়াদ এবং ধর্ম্মদাসের এক মাস মিয়াদ হইয়াছে। ক্ষেত্রমোহন ভট্টাচাৰ্য ভাস্করেরও সম্পাদক।

নব কলেবরে উদিত সম্বাদ রসরাজ পত্রিকা

এর কয়েক মাস পরে ‘সম্বাদ রসরাজ’ নব কলেবরে উদিত হয়। এই বিষয়ে’সোমপ্রকাশ ‘ (২৩ মার্চ ১৮৬৩) মন্তব্য করে রে, নতুন কলেবর ধারী রসরাজ পত্র আমাদের হস্তগত হয়েছে। আহ্লাদের বিষয় এই যে এখন আর কোনো অশ্লীল বিষয় লেখা হবে না।

উপসংহার :- শেষ পর্যন্ত সম্পাদক সম্বাদ রসরাজ পত্রিকাটিকে সাহিত্য পত্র করবেন বলে কল্পনা করেছেন। যাই হোক এর নামটিতেও আমাদের অরুচি জন্মেছে। সম্পাদক এই সঙ্গে নামটাও পরিবর্তন করুন।

(FAQ) সম্বাদ রসরাজ পত্রিকা সম্পর্কে জিজ্ঞাস্য?

১. সম্বাদ রসরাজ কি ধরনের পত্রিকা?

সাপ্তাহিক পত্রিকা।

২. সম্বাদ রসরাজ পত্রিকার সম্পাদক কে ছিলেন?

কালীকান্ত গঙ্গোপাধ্যায়।

৩. সম্বাদ রসরাজ পত্রিকা প্রকাশিত হয় কখন?

২৯ নভেম্বর ১৮৩৯ খ্রিস্টাব্দে।

অন্যান্য ঐতিহাসিক পত্রিকাগুলি

Leave a Comment