ইয়ং ইতালি আন্দোলন

ইতালির ঐক্য আন্দোলনে ইয়ং ইতালি আন্দোলন প্রসঙ্গে ম্যাৎসিনি, কার্বোনারি আন্দোলনের ত্রুটি, ইয়ং ইতালি দল প্রতিষ্ঠা, ম্যাৎসিনির মন্তব্য, জাতীয় প্রতিষ্ঠান, ইয়ং ইতালি দলের উদ্দেশ্য, ইয়ং ইতালি দলের সদস্য, পত্রিকা প্রকাশ, পতাকা, ম্যাৎসিনি ও ইয়ং ইতালি দলের কর্মসূচি হিসেবে অস্ট্রিয়ার প্রাধান্যের অবসান, যুব শক্তির উপর আস্থা, জনগণের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ, প্রজাতন্ত্র প্রতিষ্ঠা, ইয়ং ইতালি দলের ব্যর্থতা ও কৃতিত্ব সম্পর্কে জানবো।

ইয়ং ইতালি আন্দোলন

প্রতিষ্ঠাকাল১৮৩২ খ্রিষ্টাব্দ
প্রতিষ্ঠাতাম্যাৎসিনি
স্থানমার্সাই, ফ্রান্স
উদ্দেশ্যইতালিতে জাতীয়তাবোধের সঞ্চার
ইয়ং ইতালি আন্দোলন

ভূমিকা:- কার্বোনারী আন্দোলন -এর ব্যর্থতার পর এটাই ঐক্য আন্দোলনের নেতৃত্ব গ্রহণ করেন জোসেফ ম্যাৎসিনি ও তার ইয়ং ইতালি বা নব্য ইতালি দল।

ম্যাৎসিনি

ইতালীয় ঐক্য আন্দোলনের প্রাণপুরুষ ম্যাৎসিনি ছিলেন বাগ্মী, সুলেখক, সাংবাদিক, চিন্তাবিদ, বিপ্লবী সংগঠক ও জলন্ত দেশপ্রেমিক।

কার্বোনারী আন্দোলনের ত্রুটি

ম্যাৎসিনি উপলব্ধি করেন যে কার্বোনারি আন্দোলনের মাধ্যমে কেবলমাত্র গুপ্তহত্যা বা সন্ত্রাসবাদীর দ্বারা ইতালিকে ঐক্যবদ্ধ করা যাবে না। এর জন্য দরকার জনজাগরণ, দরকার যুবশক্তির উন্মেষ।

ইয়ং ইতালি দল প্রতিষ্ঠা

ম্যাৎসিনি উপলব্ধি করেন যে আত্মদান ও আত্মত্যাগের মাধ্যমে একমাত্র যুবকরা নতুনভাবে ইতালির ইতিহাস রচনা করতে পারে। এই উদ্দেশ্যে নির্বাসিত অবস্থায় ফ্রান্সের মার্সাই শহরে ১৮৩২ খ্রিস্টাব্দে তিনি এবং ইয়ং ইতালি বা নব্য ইতালি নামে একটি যুব সংগঠন তৈরি করেন।

ম্যাৎসিনির মন্তব্য

ম্যাৎসিনি বলেন যে, “উন্মত্ত জনতার অগ্রভাগে যুবকদের উপস্থিতি তাদের নবীন অন্তরে লুকায়িত ক্ষমতার উৎসকেই প্রকাশ করে এবং তাদের উদাত্ত আহ্বান জনতার মধ্যে ইন্দ্রজালিক প্রভাবের সৃষ্টি করে।”

জাতীয় প্রতিষ্ঠান

গুপ্ত সমিতি হলেও ইয়ং ইতালি কোনো নাশকতামূলক প্রতিষ্ঠান ছিল না। এটি ছিল একটি জাতীয় প্রতিষ্ঠান, আঞ্চলিক প্রতিষ্ঠান নয়।

উদ্দেশ্য

ইয়ং ইতালি দলের ঘোষিত উদ্দেশ্য ছিল শিক্ষা, প্রচার, আত্মত্যাগ ও চরিত্র নিষ্ঠার দ্বারা ইতালিতে জাতীয়তাবোধের সঞ্চার করা।

ইয়ং ইতালি দলের সদস্য

দু বছরের মধ্যেই ইয়ং ইতালি দলের সদস্য সংখ্যা ষাট হাজার স্পর্শ করে।

পত্রিকা প্রকাশ

ম্যাৎসিনি ইতালির ঐক্যের আদর্শ প্রচারের জন্য ইয়ং ইতালি নামে একটি পত্রিকা প্রকাশ করেন।

পতাকা

ইয়ং ইতালি দলের জন্য ম্যাৎসিনি যে পতাকা তৈরি করেন তার একদিকে লেখা ছিল স্বাধীনতা ও ঐক্য এবং অপরদিকে লেখা ছিল গণতন্ত্র, সাম্য ও মানবতা।

ম্যাৎসিনি ও ইয়ং ইতালি দলের কর্মসূচি

ম্যাৎসিনি ও তার প্রতিষ্ঠিত নিয়ম ইতালি দলের কর্মসূচিতে কয়েকটি ভাগে ভাগ করা যায়। যেমন –

(১) অস্ট্রিয়ার প্রাধান্যের অবসান

ম্যাৎসিনি ঐক্যবদ্ধ ইতালির স্বপ্ন দেখতেন এবং এজন্য ইতালি থেকে অস্ট্রিয়ার উচ্ছেদ অপরিহার্য বলে মনে করতেন। ইতালির ঐক্য ও উন্নতির প্রথম শর্তই হল অস্ট্রিয়ার প্রাধান্যের অবসান।

(২) যুব শক্তির উপর আস্থা

ইতালির ঐক্য ও উন্নতির কাজে তিনি কোনো বিদেশি সাহায্য গ্ৰহনের পক্ষপাতী ছিলেন না তিনি মনে করতেন যে ইতালির আত্মনির্ভরশীল যুবকরা নিজেরাই এই কাজে সক্ষম।

(৩) জনগণের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ

ম্যাৎসিনি বিশ্বাস করতেন যে জনগণকে বাদ দিয়ে কোনো আন্দোলন সফল হতে পারেনা। তার মতে বিপ্লব জনগণের দ্বারা এবং জনগণের জন্যই সংঘটিত হয়। তাই তিনি ইয়ং ইতালি দলের সদস্যদের জনগণের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ রেখে তাদের জীবনের ঘনিষ্ঠ শরীক হওয়ার আবেদন জানান।

(৪) প্রজাতন্ত্র প্রতিষ্ঠা

জনগণের সার্বভৌমত্বে বিশ্বাসী ম্যাৎসিনি স্বাধীন ইতালিতে প্রজাতান্ত্রিক সরকার গঠনের পক্ষপাতি ছিলেন, রাজতন্ত্র নয়।

ব্যর্থতা

১৮৪৮ খ্রিস্টাব্দে ফ্রান্সে ফেব্রুয়ারি বিপ্লব শুরু হলে ইতালির সর্বত্র জাতীয়তাবাদী আন্দোলন প্রবলতর রূপ ধারণ করে। কিন্তু অস্ট্রিয়া ও ফ্রান্সের যুগ্ম-বাহিনী ইতালির গণ আন্দোলন স্তব্ধ করে দেয়।

কৃতিত্ব

যে কোনো বিপ্লবের আগে যে মানসিক প্রস্তুতি বা মানসিক বিপ্লবের প্রয়োজন হয় ম্যাৎসিনি ও তার ইয়ং ইতালি দল ইতালিবাসির মনে সেই বিপ্লব সম্পন্ন করে ইতালীয় ঐক্যের পথ প্রশস্ত করে দেন। পরবর্তীকালে তার উপর ভিত্তি করেই কেভুর ইতালির ঐক্য আন্দোলনকে পূর্ণতা দান করেন

উপসংহার:- ম্যাৎসিনি ও তার ইয়ং ইতালি দল ব্যর্থ হয়। কিন্তু এই ব্যর্থতার মধ্যেই ভবিষ্যতের বীজ নিহিত ছিল। এই ব্যর্থতা থেকে শিক্ষা নিয়েই ক্যাভুর ইতালিকে ঐক্যবদ্ধ করেন।

(FAQ) ইয়ং ইতালি আন্দোলন সম্পর্কে জিজ্ঞাস্য?

১. ইতালির ঐক্য আন্দোলনের প্রাণপুরুষ কে ছিলেন?

জোসেফ ম্যাৎসিনি।

২. কে, কবে ইয়ং ইতালি দল প্রতিষ্ঠা করেন?

জোসেফ ম্যাৎসিনি ১৮৩২ খ্রিস্টাব্দে।

৩. ইয়ং ইতালি দলের পতাকায় কি লেখা ছিল?

একদিকে স্বাধীনতা ও ঐক্য অপরদিকে গণতন্ত্র, সাম্য ও মানবতা।

৪. ইয়ং ইতালি দল কোথায় প্রতিষ্ঠিত হয়?

ফ্রান্সের মার্সাই শহরে।

Leave a Reply

Translate »