সিকান্দার লোদী

সুলতান সিকান্দার লোদী প্রসঙ্গে অভিজাত ও প্রতিদ্বন্দ্বীদের হত্যা, বারবাক শাহের পদচ্যুতি, জোনপুরের সুলতানের বিদ্রোহ, বিহার জয়, বাংলার সুলতানের সঙ্গে সন্ধি, আগ্রায় শাসন কেন্দ্র স্থাপন, শাসন নীতি বিভিন্ন সংস্কার ও তার ধর্মনীতি সম্পর্কে জানবো।

সুলতান সিকান্দার লোদী

ঐতিহাসিক চরিত্রসিকন্দার লোদী
রাজত্বকাল১৪৮৯-১৫১৭ খ্রিস্টাব্দ
বংশলোদী বংশ
পূর্বসূরিবহলুল লোদী
উত্তরসূরিইব্রাহিম লোদী
সুলতান সিকান্দার লোদী

ভূমিকা :- বহলুল লোদীর মৃত্যুর পর তার তৃতীয় পুত্র নিজাম খান, সিকন্দার শাহ উপাধি নিয়ে দিল্লীর সিংহাসনে বসেন। তিনি লোদী বংশের অপর উত্তরাধিকারীদের হত্যা করে তার সিংহাসন নিষ্কন্টক করেন।

সিকান্দার লোদী কর্তৃক অভিজাত ও প্রতিদ্বন্দ্বীদের হত্যা

যেহেতু সিকন্দারের মাতা হিন্দু রমণী ছিলেন, সেহেতু তাঁর দেহে খাঁটি আফগান রক্ত নেই, এই অজুহাতে এক শ্রেণীর আফগান অভিজাত তাঁকে ক্ষমতাচ্যুত করার চেষ্টা করে। সিকন্দার এই সকল ক্ষমতালোভী আফগান অভিজাতদের হত্যা করেন। তিনি বাকি অভিজাতদেরও দমিয়ে ফেলেন। এর ফলে তিনি সিংহাসনের মর্যাদা বিশেষভাবে বাড়াতে সক্ষম হন।

সিকান্দার লোদী কর্তৃক বারবাক শাহের পদচ্যুতি

  • (১) জৌনপুর জয় করার পর বহলুল লোদী তাঁর জোষ্ঠ পুত্র বারবাক শাহকে জৌনপুরের শাসনকর্তা নিযুক্ত করেন। সিকন্দার শাহ তাঁর ভ্রাতা বারবাক শাহকে তার বশ্যতা স্বীকারের জন্য আহ্বান জানান।
  • (২) বারবাক শাহ তাতে অস্বীকৃতি জানালে এবং তাঁর অধীনস্থ জাগীরদারদের দমনে অক্ষমতা দেখালে, সিকন্দার শাহ, বারবার শাহকে পদচ্যুত করে বন্দী করেন। তিনি জৌনপুরে নিজের বিশ্বস্ত লোককে শাসনকর্তা নিযুক্ত করেন। শেষ পর্যন্ত তিনি জৌনপুরকে প্রত্যক্ষ শাসনে আনেন।

সিকান্দার লোদীর বিরুদ্ধে জৌনপুরের সুলতানের বিদ্রোহ

  • (১) জৌনপুরের ভূতপূর্ব সুলতান হুসেন শাহ শার্কি জৌনপুরে বিদ্রোহ ঘটাবার চক্রান্ত করেন এবং জৌনপুর আক্রমণ করেন। সুলতান সিকান্দার শাহ তাকে বারাণসীর যুদ্ধে (১৪৯৪ খ্রি) পরাস্ত করে বিহারে বিতাড়ন করেন এবং বাংলার সীমান্ত পর্যন্ত তাঁকে অনুসরণ করেন।
  • (২) বাংলার সুলতান আলাউদ্দিন হুসেন শাহ, জৌনপুরের প্রাক্তন শাসক আলাউদ্দিন হুসেন শাহ শর্কিকে তাঁর নিজ দায়িত্বে নজর বন্দী রাখার প্রতিশ্রুতি দিলে সিকান্দার শাহ দিল্লীতে ফিরে আসেন।

সুলতান সিকান্দার লোদীর বিহার জয়

জৌনপুর অভিযানের ফলে বিহার সিকন্দার শাহের রাজ্যভুক্ত হয়। এই সঙ্গে তিনি ত্রিহুত জয় করেন।

বাংলার সুলতানের সঙ্গে সিকান্দার লোদীর সন্ধি

বাংলার সুলতান হুসেন শাহ তাঁর সঙ্গে সন্ধি স্থাপন করেন। সিকন্দার শাহ মালবের ওপর তার পরোক্ষ অধিকার স্থাপন করেন। তিনি কয়েকজন রাজপুত রাজাকেও পরাস্ত করেন।

সিকান্দার লোদী কর্তৃক আগ্ৰায় শাসন কেন্দ্র স্থাপন

সিকন্দার শাহ আগ্রায় তাঁর শাসনকেন্দ্র কিছুদিনের জন্য সরিয়ে আনেন। তার উদ্দেশ্য ছিল আগ্রা থেকে উত্তরপ্রদেশ ও বিহারের ওপর তার শাসনকে দৃঢ় করার ব্যবস্থা করা।

সিকান্দার লোদীর শাসন নীতি

  • (১) সিকন্দার শাহ তাঁর উচ্চাকাঙ্ক্ষী আফগান কর্মচারীদের নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য বিশেষ চেষ্টা করেন। তিনি সকল কর্মচারীকে নিয়মিত হিসেবপত্র দাখিল করতে আদেশ দেন। হিসেবপত্র অথবা সুলতানের প্রাপ্য অর্থের গোলমাল হলে তিনি কঠোর শাস্তি দিতেন।
  • (২) দরবারে অভিজাতরা যাতে তাঁকে নিয়মিত সম্মান জ্ঞাপন করে সেই মর্মে তিনি আদেশ দেন। এজন্য তিনি দরবারে নানা আদব-কায়দা চালু করেন। তিনি আফগান অভিজাতদের একথা ভালভাবে বুঝিয়ে দেন যে, তারা যদি আফগান জাতির উপজাতীয় প্রথা অনুসারে সুলতানের সঙ্গে সমকক্ষতা দাবী করে তাহলে তাদের কঠোর শাস্তি দেওয়া হবে।
  • (৩) তিনি ন্যায় বিচার করার চেষ্টা করতেন। ধনী ও দরিদ্রকে আইনের চক্ষে সমানভাবে রাখার চেষ্টা করতেন। তিনি গুপ্তচর ব্যবস্থা জোরদার করেন। এই গুপ্তচররা বিভিন্ন অভিজাত কর্মচারীদের সম্পর্কে সুলতানের কাছে নিয়মিত খবর পাঠাত। এইভাবে তিনি সুলতানের ক্ষমতা ও মর্যাদা বৃদ্ধির ব্যবস্থা করেন।

সিকান্দার লোদীর বিভিন্ন সংস্কার

সুলতান সিকান্দার শাহ কৃষি ও বাণিজ্যের উন্নতির জন্য চেষ্টা করেন। তিনি খাদ্যশস্যের ওপর বিক্রয় শুল্ক লোপ করেন। তিনি রাস্তাঘাট নির্মাণ করে খাদ্য সরবরাহ সুগম করেন। এর খলজী আমলের মতই সস্তা দরে খাদ্য পাওয়া যেত। দরিদ্র লোকেরা কম দামে খাদ্যশস্য কিনতে পারত। এর ফলে সাম্রাজ্যে অর্থনৈতিক স্বচ্ছলতা দেখা দেয়। তিনি দরিদ্রদের বিনামূল্যে খাদ্য বিতরণ করতেন।

সিকান্দার লোদীর ধর্মনীতি

  • (১) জ্ঞানী ও গুণীদের তিনি সমাদর করতেন। ধর্মীয় ব্যাপারে সিকন্দার শাহ গোঁড়ামির পরিচয় দেন। সমকালীন ঐতিহাসিক নিজামুদ্দিন বলেছেন যে, “সিকন্দারের ধর্মোন্মত্ততা বল্গা ছেঁড়া ছিল।”
  • (২) কোনো কোনো ঐতিহাসিক বলেন যে সিকন্দারের মাতা যেহেতু হিন্দু ছিলেন, তিনি ইসলামের প্রতি তার প্রকৃত অনুরক্তি দেখানোর জন্যে কিছুটা বাড়াবাড়ি করেন। আসলে তিনি ধর্মান্ধ ছিলেন না।

উপসংহার :- লোদী সুলতানদের মধ্যে সিকন্দার যোগ্যতম ছিলেন। ডঃ কে. এস. লালের মতে, “সিকন্দারের ২৯ বছরের রাজত্বকাল ছিল গৌরবে পরিপূর্ণ।” কিন্তু তিনি বহু চেষ্টা করেও আফগান আমীরদের উপজাতীয় চিন্তাধারা দূর করতে সক্ষম হন নি।

(FAQ) সুলতান সিকান্দার লোদী সম্পর্কে জিজ্ঞাস্য?

১. লোদী সুলতানদের মধ্যে যোগ্যতম কে ছিলেন?

সিকান্দার লোদী।

২. সিকান্দার লোদীর প্রকৃত নাম কি?

নিজাম খান।

৩. কোন সুলতান আগ্ৰায় শাসন কেন্দ্র স্থাপন করেন?

সিকান্দার লোদী।

৪. সিকান্দার লোদী কি উপাধি গ্ৰহণ করেন?

সিকান্দার শাহ।

Leave a Comment