পল্লব বংশের উৎপত্তি

পল্লব বংশের উৎপত্তি প্রসঙ্গে জয়সোয়ালের অভিমত, রাইসের অভিমত, হেরাসের মন্তব্য, দক্ষিণ ভারতের আদি অধিবাসী, সাতবাহনদের সামন্ত, আয়েঙ্গারের অভিমত সম্পর্কে জানবো।

পল্লব বংশের উৎপত্তি

ঐতিহাসিক ঘটনা পল্লব বংশের উৎপত্তি
বংশ পল্লব বংশ
রাজধানী কাঞ্চী
প্রথম রাজা শিবস্কন্দ বর্মন
শ্রেষ্ঠ রাজা প্রথম নরসিংহ বর্মন
শেষ রাজা অপরাজিত পল্লব
পল্লব বংশের উৎপত্তি

ভূমিকা :- পল্লব রাজবংশের উৎপত্তি সম্পর্কে পণ্ডিতেরা নানা রকম অভিমত দেন। প্রকৃত যে তথ্য জানা যায় তা হল এই যে, সাতবাহন সাম্রাজ্য ভেঙে গেলে এই সাম্রাজ্যের দক্ষিণ ভাগ নিয়ে পল্লব রাজ্য গড়ে  ওঠে। পল্লবদের আদি রাজধানী হল কাঞ্চিপুর বা কাঞ্চি।

জয়সোয়ালের অভিমত

  • (১) পল্লব রাজবংশের আদি লিপিগুলি প্রাকৃত ভাষায় রচিত। এজন্য ডঃ জয়সোয়াল প্রমুখ পণ্ডিত এই অভিমত দেন যে, স্থানীয় তামিল ভাষায় লিপি রচনা না করে, প্রাকৃত ভাষায় লিপি রচনা প্রমাণ করে যে, পল্লবরা ছিল বহিরাগত এবং তাদের সঙ্গে উত্তর ভারতীয় সংস্কৃতির যোগ ছিল।
  • (২) পরবর্তীকালে পল্লবরা প্রাকৃতের বদলে সংস্কৃতকে গ্রহণ করে। তেলেগুণ্ডা লিপি থেকে অনুমান করা হয় যে, পল্লবরা ছিল ক্ষত্রিয় বংশ। ডঃ জয়সোয়ালের মতে, পল্লবরা ছিল ব্রাহ্মণ বাকাটক বংশের সঙ্গে সংযুক্ত। অনেক পণ্ডিত পল্লবদের উত্তর ভারতীয় উৎপত্তির কথা সমর্থন করেন।

রাইসের অভিমত

  • (১) বি. এল রাইস প্রমুখ পণ্ডিতেরা বলেন, পল্লবরা ছিল পারসিক পহ্লবদের সঙ্গে সম্পর্কিত। পল্লবরা প্রথমে উত্তর-পশ্চিম ভারত -এ বসবাস করত, পরে তারা তোতামণ্ডলমে বসবাস করে। কিন্তু পল্লবরা পারসিক বংশীয় ছিল এমন কোনো নির্ভরযোগ্য প্রমাণ পাওয়া যায়নি।
  • (২) দক্ষিণ ভারতে বসবাস করতে আসে এমন কোন প্রমাণ না থাকায় পারসিক উদ্ভব তত্ত্বকে বেশীর ভাগ পণ্ডিত অগ্রাহ্য করেন। সাম্প্রতিককালে ফাদার হেরাস এই মতবাদকে সমর্থন করে প্রবন্ধ লিখেছেন।

দুব্রেইলের অভিমত

অধ্যাপক দুব্রেইল বলেছেন যে, মহাক্ষত্রপ রুদ্রদামন -এর মন্ত্রী সুবিশাখ ছিলেন পহ্লব বা পারথীয়। দক্ষিণের পল্লবরা তারই বংশধর ছিল।

হেরাসের মন্তব্য

  • (১) ফাদার হেরাস তার মতের সমর্থনে পল্লব ভাস্কর্যে পারথীয় প্রভাব দেখাবার চেষ্টা করেছেন। কাঞ্চীর বৈকুণ্ঠ পেরুমল মন্দিরের গায়ে যে রাজমুকুটের ছবি খোদাই করা আছে তা হাতির মাথার মত ব্যাকট্রীয় রাজা ডিমিট্রিয়াস -এরও এই ধরনের মুকুট ছিল। এই সাদৃশ্য দেখে তাঁরা পল্লবদের বৈদেশিক উৎপত্তির কল্পনা করেন।
  • (২) কিন্তু এই মতের সমর্থনে প্রমাণ খুবই দুর্বল। পল্লবরা কেন বৈদিক ধর্ম ও যজ্ঞ অনুষ্ঠান করত, কেন তারা প্রাকৃত ও সংস্কৃত লিপি ব্যবহার করত এই সকল প্রশ্নের সদুত্তর ফাদার হেরাস ও তার অনুগামীরা দিতে পারেননি।
  • (৩) তাছাড়া পল্লব রাজারা নিজেদের ভরদ্বাজ গোত্রীয় বলেছেন। পার্থিয় বা পারসিক বা গ্রীকদের কোনো গোত্র ছিল না। রাজশেখর পল্লবদের দক্ষিণ ভারতীয় উৎপত্তির কথা বলেছেন।

দক্ষিণ ভারতের আদি অধিবাসী

রবিনসন প্রমুখ পণ্ডিত বলেন যে, পল্লবরা ছিল তোণ্ডামণ্ডলম বা দক্ষিণ ভারতের আদি অধিবাসী। তাঁর মতে, পল্লব কথাটি পুলিন্দ” বা পালদ” কথা থেকে এসেছে। অশোকের শিলালিপিতে দক্ষিণ ভারতের পুলিন্দদের নাম আছে। তোতামণ্ডলম অশোকের সাম্রাজ্যের অংশ ছিল।

সাতবাহনদের সামন্ত

পরবর্তীকালে সাতবাহন শাসনের সময় পল্লবরা সাতবাহনদের সামন্ত ছিল। ২২৫ খ্রিস্টাব্দে সাতবাহন শক্তির পতনের পর পল্লবরা স্বাধীন শক্তি হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে। যেহেতু পল্লবরা মৌর্য ও সাতবাহনদের সঙ্গে যুক্ত ছিল, সেহেতু পল্লবরা আদি যুগে প্রাকৃতে তাদের লিপি খোদাই করত।

রসমনায়গমের অভিমত

ডঃ এম. রসমনায়গম প্রমুখ পণ্ডিত বলেন যে, পল্লবরা চোল বংশ ও নাগ বংশের মিলনে উদ্ভূত হয়। মনিপল্লবমের নাগ রাজকন্যার সহিত চোল রাজপুত্রের মিলনে পল্লব বংশের উৎপত্তি হয়। মনিপল্লবম ছিল সিংহলের নিকটবর্তী দ্বীপ। এই বিবাহের ফলে যে পুত্র জন্মায়, সেই পুত্র তোণ্ডামণ্ডলমের অধিপতি হয়ে পল্লব উপাধি নেয়। তার নাগবংশীয় মাতার পিতৃদেশ মনিপল্লবম বুঝাতে ‘পল্লব’ উপাধি নেওয়া হয়।

আয়েঙ্গারের অভিমত

ডঃ আয়েঙ্গারের মতে, তামিল সাহিত্যে পল্লবদের নাম হল তোণ্ডাইয়ার। এই কথাটির সংস্কৃত অর্থ হল পল্লব। পল্লবরা ছিল প্রাচীন নাগবংশীয়।

উপরের মতের দুর্বলতা

কিন্তু রসমনায়গম ও ডঃ আয়েঙ্গারের মতের দুর্বলতা এই যে, পল্লবরা যদি তামিল হবে তবে তারা তামিল ভাষা ব্যবহার না করে গোড়ায় কেন প্রাকৃত ব্যবহার করত, তার কারণ তারা দেননি। সেই দিক থেকে রবিনসন প্রমুখ পণ্ডিতের ব্যাখ্যা সঙ্গতিপূর্ণ।

মহালিঙ্গমের অভিমত

  • (১) ডঃ মহালিঙ্গম অবশ্য মতকে ত্রুটিপূর্ণ মনে করেন। পল্লব শব্দের সঙ্গে পুলিন্দ শব্দের সম্পর্ক বিষয়ে তিনি সন্দেহ প্রকাশ করেন। কূরুম্বগণের সঙ্গে পল্লবদের সম্পর্ককেও তিনি স্বীকার করেন না।
  • (২) ডঃ মহালিঙ্গমের মতে, পল্লবদের ভরদ্বাজ গোত্র প্রমাণ করে যে তাঁরা সঠিকভাবে দক্ষিণের লোক ছিলেন না। তাঁরা সাতবাহনদের একটি শাখা ছিলেন। এবং এই অর্থে পল্লব। নেল্লোরে তারা প্রথমে সাতবাহনদের সামন্ত ছিলেন, পরে নাগদের সঙ্গে বৈবাহিক সূত্রে আবদ্ধ হয়ে কাঞ্চীতে স্বাধীন রাজবংশ স্থাপন করেন।

উপসংহার :- পল্লবদের আদি বাসস্থান ও তাদের জাতি সম্পর্কে মতভেদের অন্ত নেই। তবে সাতবাহন ও নাগেদের সাথে পল্লবদের সম্পর্ক ছিল তা বেশিরভাগ পণ্ডিত উল্লেখ করেছেন।

(FAQ) পল্লব বংশের উৎপত্তি সম্পর্কে জিজ্ঞাস্য?

১. পল্লবদের রাজধানী কোথায় ছিল?

কাঞ্চী।

২. পল্লব বংশের প্রথম রাজা কে ছিলেন?

শিবস্কন্দ বর্মন।

৩. পল্লব বংশের শ্রেষ্ঠ রাজা কে ছিলেন?

প্রথম নরসিংহ বর্মন।

৪. পল্লব বংশের শেষ রাজা কে ছিলেন?

অপরাজিত বর্মন।

Leave a Comment