চান্দেল্ল বংশ

চান্দেল্ল বংশ প্রসঙ্গে প্রথম ঐতিহাসিক ব্যক্তি, রাজা জয়শক্তি, চান্দেল্ল বংশের প্রথম পরাক্রান্ত, রাজা গণ্ড, রাজা বিদ্যাধর, অন্ধকারাবৃত চান্দেল্ল রাজশক্তি, রাজা কীর্তিবর্মন ও মদনবর্মন প্রমুখের সম্পর্কে জানবো।

চান্দেল্ল বংশ

ঐতিহাসিক বংশচান্দেল্ল বংশ
রাজ্যের কেন্দ্রখাজুরাহো
প্রথম ঐতিহাসিক ব্যক্তিনন্নুক
শ্রেষ্ঠ রাজাবিদ্যাধর
ধর্মশৈব, বৈষ্ণব ও জৈন ধর্ম
চান্দেল্ল বংশ

ভূমিকা :- চন্দ্রাত্রেয় বা চান্দেল্ল বংশের আদি ইতিহাস রহ্যাবৃত। সাধারণের বিশ্বাস, চন্দ্রের পুত্র ঋষি চন্দ্রাত্রেয় হতে এই বংশের উৎপত্তি। মধ্য প্রদেশের খাজুরাহো চান্দেল্ল শক্তির আদি কেন্দ্র ছিল।

চান্দেল্ল বংশের প্রথম ঐতিহাসিক ব্যক্তি

শিলালিপিতে এই বংশের প্রথম যে ঐতিহাসিক ব্যক্তির উল্লেখ আছে তাঁর নাম নন্নুক। তিনি সম্ভবতঃ নবম শতাব্দীর প্রথম পাদে বর্তমান ছিলেন।

চান্দেল্ল বংশের নৃপতি জয়শক্তি

এই বংশের প্রথম নৃপতিগণ ছিলেন গুর্জর-প্রতিহারগণের সামন্ত। তাদের অন্যতম জয়শক্তি, জেজ্জক বা জেজা নামেও পরিচিত ছিলেন। তার অধিকৃত রাজ্য ‘জেজকভুক্তি’ নামে পরিচিত হয়। এই বংশের হর্ষ এবং যশোবর্মন ক্ষমতাশালী শাসক ছিলেন।

চান্দেল্ল বংশের প্রথম পরাক্রান্ত নৃপতি

প্রথম পরাক্রান্ত চান্দেল্ল নৃপতির নাম ধঙ্গ (আনুমানিক ৯৫৪-১০০২ খ্রিস্টাব্দ)। তিনি এলাহাবাদ, কালঞ্জর ও গোয়ালিয়র সহ উত্তর ভারতের এক বিস্তৃত অঞ্চলে রাজত্ব করতেন। কথিত আছে, তিনি উত্তর ভারত ও দাক্ষিণাত্যের বহু নৃপতিকে পরাজিত করেছিলেন, কিন্তু শিলালিপির এই সব বিবরণের সত্যতা বিচার করা কঠিন।

চান্দেল্ল বংশের নৃপতি গণ্ড

রাজা দুর্গের উত্তরাধিকারী হন তার পুত্র গণ্ড। অনেকের মতে, কোনো কোনো মুসলমান ঐতিহাসিক গজনীর সুলতান মামুদের প্রতিপক্ষ রূপে নন্দ নামে যে পরাক্রান্ত নৃপতির কথা উল্লেখ করেছেন, তিনিই গণ্ড। তবে সম্ভবতঃ এই ধারণা সত্য নয়।

চান্দেল্ল বংশের নৃপতি বিদ্যাধর

  • (১) গণ্ডের পুত্র ও উত্তরাধিকারী বিদ্যাধরকে (আনুমানিক ১০১৭-১০২৯ খ্রিস্টাব্দ) মুসলমান ঐতিহাসিকরা ‘ভারতের নৃপতিদের মধ্যে রাজ্যের আয়তনের দিক থেকে সর্বশ্রেষ্ঠ বলে বর্ণনা করেছেন।
  • (২) তিনি প্রতিহার বংশের শেষ প্রতিনিধি রাজ্যপালকে পরাজিত ও নিহত করেন। অতঃপর সুলতান মামুদের আক্রমণ থেকে গঙ্গা-যমুনা উপত্যকা রক্ষা করবার দায়িত্ব তাহার উপরেই পড়ে। কোনো কোনো ঐতিহাসিকের মতে, তিনিই মুসলমান ঐতিহাসিকগণ কর্তৃক বর্ণিত পরাক্রান্ত হিন্দু রাজা নন্দ।
  • (৩) নন্দের সাথে সুলতান মামুদের সংঘর্ষের যে বিবরণ পাওয়া যায়, তা থেকে নিঃসন্দেহে বলা যায় যে এই প্রসিদ্ধ বিজয়ী অন্যান্য হিন্দুরাজাদের বিরুদ্ধে যে সাফল্য অর্জন করেছিলেন, চান্দেল্লদের ক্ষেত্রে তার পুনরাবৃত্তি করতে পারেন নি।

অন্ধকারাবৃত চান্দেল্ল রাজশক্তি

বিদ্যাধরের অব্যবহিত পরবর্তী চান্দেল্ল রাজগণ দুর্বল শাসক ছিলেন। ফলে প্রসিদ্ধ কলচুরিরাজ লক্ষ্মীকর্ণের বিজয়গৌরবে চান্দেল্ল রাজাদের শক্তি সম্পূর্ণরূপে অন্ধকারাবৃত হয়েছিল।

চান্দেল্ল বংশের রাজা কীর্তিবর্মন

কীতিবর্মনের রাজত্বকালে (আনুমানিক ১০৭০-১০৯৮ খ্রিস্টাব্দ) চান্দেল্ল শক্তির পুনরুদ্ধার হয়। তাঁর সেনাপতি গোপাল লক্ষ্মীকর্ণকে সম্পূর্ণভাবে পরাজিত করেন। কিন্তু কলচুরি রাজার আঘাত এত প্রবল হয়েছিল যে তার পরে চান্দেল্ল রাজগণের পক্ষে উত্তর ভারতে প্রধান স্থান অর্জন করা আর সম্ভব হয় নি।

চান্দেল্ল বংশের শেষ শক্তিশালী শাসক মদনবর্মন

  • (১) এই বংশের সর্বশেষ শক্তিশালী শাসক মদনবর্মন (আনুমানিক ১১২৯-১১৬৩ ঐস্টাব্দ)। তিনি চান্দেল্ল রাজবংশের ইতিহাসের সাথে যুক্ত চারটি প্রধান স্থান কালঞ্জর, খাজুরাহো, অজয়গড় এবং মহোবা নিজ অধিকারে রেখেছিলেন।
  • (২) কথিত আছে, তিনি মালবের পারমাররাজ, ডাহলের কলচুরিরাজ, এবং গুজরাটের চৌলুক্যরাজ সিদ্ধরাজ জয়সিংহকে পরাজিত করেছিলেন। শোনা যায়, বারাণসীর গাহড়বাল রাজা তাঁর প্রতি বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণে কালযাপন করতেন।

চান্দেল্ল বংশের রাজা পরমর্দি

মানবর্মনের পৌত্র পরমর্দি (আনুমানিক ১১০৭-১২০২ খ্রিস্টাব্দ) দিল্লী ও আজমীরের চৌহান বংশীয় বিখ্যাত নৃপতি তৃতীয় পৃথ্বীরাজ কর্তৃক পরাজিত হয়েছিলেন। ১২০২ খ্রিস্টাব্দে মহম্মদ ঘুরীর সেনাপতি কুতুবউদ্দীন কালঞ্জর অধিকার করে পরমর্দিকে দাসত্বের বন্ধন গলায় পরতে বাধ্য করেন।

চান্দেল্ল বংশের রাজা ত্রৈলোক্যবর্মন

তার পুত্র ত্রৈলোক্যবর্মন (আনুমানিক ১২০৫ -১২৪১ খ্রিস্টাব্দ) মুসলমানদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করেন। তিনি সম্ভবতঃ কালঞ্জর উদ্ধার করেছিলেন। ষোড়শ শতাব্দী পর্যন্ত বুন্দেলখণ্ডের কোনো কোনো অংশ চান্দেল্ল বংশের রাজগণের শাসনাধীন ছিল।

উপসংহার :- চান্দেল্ল রাজগণ শিল্পের পৃষ্ঠপোষক ছিলেন। খাজুরাহোতে (মধ্য প্রদেশ) প্রায় ত্রিশটি মন্দির আছে। এই মন্দিরগুলি তিন ধর্মের উপাসনার জন্য নির্মিত হয় – শৈব ধৰ্ম, বৈষ্ণব ধর্ম ও জৈন ধর্ম। এগুলি স্থাপত্য ও ভাস্কর্য শিল্পের অতি উচ্চ মানের নিদর্শন।

(FAQ) চান্দেল্ল বংশ সম্পর্কে জিজ্ঞাস্য?

১. চান্দেল্ল বংশের আদি কেন্দ্র কোথায় ছিল?

মধ্যপ্রদেশের খাজুরাহো।

২. চান্দেল্ল বংশের প্রথম ঐতিহাসিক ব্যক্তি কে ছিলেন?

নন্নুক।

৩. চান্দেল্ল বংশের শ্রেষ্ঠ রাজা কে ছিলেন?।

বিদ্যাধর।

৪. চান্দেল্ল রাজারা কোন কোন ধর্মের অনুসারী ছিলেন?

শৈব, বৈষ্ণব ও জৈন ধর্ম।

Leave a Comment